চীন-ভারত বৈরিতায় বাংলাদেশ ও করোনার ওষুধ

8 months ago
শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদী: রাজনৈতিক কারণে ভারতের সাথে বাংলাদেশের বন্ধুত্ব অপরিহার্য।
শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদী: রাজনৈতিক কারণে ভারতের সাথে বাংলাদেশের বন্ধুত্ব অপরিহার্য।

বাংলাদেশ ভারতের বন্ধু। বাংলাদেশ চীন-এরও বন্ধু। কিন্তু চীন আর ভারত যখন তাদের দীর্ঘ দিন ধরে চলা সীমান্ত বিরোধ নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের দিকে চলে যায়, তখন বাংলাদেশের অবস্থান কী হতে পারে?

এই জটিল প্রশ্নের উত্তর জানতে চেয়ে লিখেছেন রাজবাড়ী সদর থেকে শাওন হোসাইন:

''সীমান্ত বিরোধ নিয়ে ভারত ও চীনের পরস্পর বিরোধী বক্তব্য আমরা বিভিন্ন গণমাধ্যমে দেখতে পাচ্ছি। এদিকে নদীর পানি বণ্টন ও সীমান্ত নিয়ে ভারতের সাথে ভুটান ও নেপাল বিরোধে জড়িয়েছে। সত্যিকার অর্থে ভারতের অনেকটা কোণঠাসা অবস্থা। ভৌগলিক অবস্থানগত কারণে বাংলাদেশ, ভারত ও চীনের প্রতিবেশী দেশ হওয়ায় অনেকের নজর এখন বাংলাদেশের অবস্থান নিয়ে। ''

চীন যে বাংলাদেশকে কাছে পেতে চাইছে তা অনেকটা পরিষ্কার। কিছুদিন আগে চীনের একটি প্রতিনিধিদল ঢাকা সফর শেষে বলে গেল চীন করোনাভাইরাসের টিকা আবিষ্কার করতে পারলে বাংলাদেশকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে তা দেয়া হবে। এদিকে ভারতের সাথে বাংলাদেশের বন্ধুত্ব অস্বীকার করার কিছু নেই। ভারতের একটি নামকরা দৈনিকে বাংলাদেশকে কটূক্তি করে "খয়রাতি" বলায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ব্যাপক সমালোচনার ঝড় উঠে। এই পরিস্থিতি বাংলাদেশ এখন পর্যন্ত পরিষ্কারভাবে তাদের অবস্থান ব্যক্ত করেনি। বাংলাদেশের অবস্থান আসলে কী হতে পারে?''

এই প্রতিবেদনটি শেয়ার করুন
আপনার মন্তব্য দিন

পাঠকের মন্তব্য

300x250.jpg
সকল সংবাদ