করোনা ভাইরাস: ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বলসোনারো কোভিড-১৯এ আক্রান্ত

3 months ago
মি. বলসোনারো মাস্ক পরা ও লকডাউনের সমালোচনা করেছেন অনেকবার
মি. বলসোনারো মাস্ক পরা ও লকডাউনের সমালোচনা করেছেন অনেকবার

ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জেয়ার বলসোনারো পর পর চার বার করোনাভাইরাস টেস্ট করানোর পর কোভিড-১৯ পজিটিভ বলে শনাক্ত হয়েছেন।

জ্বর ও কাশিসহ সংক্রমণের লক্ষণ দেখা দেবার পর সোমবার চতুর্থবারের মতো করোনাভাইরাস টেস্ট করান প্রেসিডেন্ট বলসোনারো।

এর আগে তিনি বার বার সংক্রমণের ঝুঁকি কমিয়ে দেখানোর চেষ্টা করেন। বলেন, তার “সামান্য ফ্লু হয়েছে, এবং তিনি গুরুতরভাবে আক্রান্ত হবেন না।“

তবে মঙ্গলবার এক টিভি সাক্ষাতকারে মি. বলসোনারো নিজেই তার সংক্রমণের কথা নিশ্চিত করেন।

তিনি অবশ্য বলেন, তার জ্বর এখন কমে যাচ্ছে এবং এখন তিনি ”ভালো বোধ করছেন।“

মি. বলসোনারোর বয়স ৬৫ – তাই তিনি কোভিড-১৯ সংক্রমণের উচ্চ-ঝুঁকিতে আছেন । তবে তিনি বলছেন তিনি হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন এবং এজিথ্রোমাইসিন খাচ্ছিলেন । করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় এ দুটো ওষুধের কার্যকারিতার কথা বরাবরই বলে আসছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

ব্রাজিলে এখন করোনাভাইরাস সংক্রমণ হুহু করে বাড়ছে। সোমবার পর্যন্ত দেশটিতে করোনাভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যা ছিল ৬৫ হাজারের বেশি, আর আক্রান্তর সংখ্যা ইতোমধ্যে ১৬ লক্ষ ছাড়িয়ে গেছে – যা যুক্তরাষ্ট্রের পর পৃথিবীর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ।

তবে এমন পরিস্থিতি সত্ত্বেও মি. বলসোনারো লকডাউন শিথিল করার কথা বলে যাচ্ছিলেন।

সোমবার তিনি মাস্ক পরা সংক্রান্ত নিয়মের কড়াকড়ি শিথিল করেন, এবং আঞ্চলিক গভর্নরদের লকডাউন শিথিল করার আহ্বান জানান।

এপ্রিল মাসে তিনি বলেছিলেন, তিনি নিজে যদি কখনো এ ভাইরাসে আক্রান্ত হন তাহলে তার তেমন কিছুই হবে না।

তিনি লকডাউনের বিরোধী ছিলেন এবং মাস্ক পরা নিয়েও ব্যঙ্গ-বিদ্রুপ করতেন।

নিউ ইয়র্ক টাইমস পত্রিকা জানাচ্ছে, শুধু মি. বলসোনারোই না, তার ক’জন সহকারীও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

গত শনিবার জেয়ার বলসোনারো যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সে দেশে মার্কিন দূতের এক ভোজসভায় যোগ দিয়েছিলেন।

এই প্রতিবেদনটি শেয়ার করুন
আপনার মন্তব্য দিন

পাঠকের মন্তব্য

300x250.jpg
সকল সংবাদ